৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

আশুগঞ্জে সড়কে নিম্নমানের কাজ রাজপথ-রেলপথ অবরোধের হুঁশিয়ারি

 

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ-আড়াইসিধা-তালশহর সড়কের ৮কিলোমিটার সংস্কার কাজে নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহারের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় দরপত্র অনুযায়ী সড়কের কাজ না করলে রাজপথ ও রেলপথ অবরোধের হুঁশিয়ারি দেন বক্তারা।

শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আশুগঞ্জউপজেলার তালশহর, আড়াইসিধা ও সদর ইউনিয়নের ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে উপজেলার রেলগেইট এলাকায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ও চার ইউনিয়নের চেয়ারম্যানসহ সহশ্রাধীক লোকজন উপস্থিত ছিল। তালশহর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সামা মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন উপজেলার চরচারতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউদ্দিন খন্দকার, সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সালাহ উদ্দিন, শরীফপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফ উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহীন সিকদার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, আশুগঞ্জ-আড়াইসিধা-তালশহর ৮ কিলোমিটার সড়কের নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে সংস্কার কাজ চলছে। এনিয়ে প্রতিবাদ করে সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সালাহ উদ্দিন। তিনি বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়েছেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আগামী ১৭ ডিসেম্বরের মধ্যে ঠিকাদার দরপত্র অনুযায়ী কাজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী ও উপজেলার উপ সহকারী প্রকৌশলীকে প্রত্যাহার এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না করলে ১৮ ডিসেম্বর রাজপথ-রেলপথ অবরোধ করা হবে হুসিয়ারী দেন বক্তরা।

এরআগে গত ১০ডিসেম্বর আশুগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সালাহ উদ্দিনসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে আশুগঞ্জ-তালশহর সড়কের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স মোস্তফা কামাল ও লোকমান হোসেন জয়েন্ট ভেঞ্চার কনস্ট্রাকশন ফার্মের ব্যবস্থাপক আতিকুর রহমান সুমন বাদী হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান সালাহ উদ্দিনসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে আতিকুর রহমান সুমনকে মারধর ও চাঁদা দাবির অভিযোগ আনা হয়েছে।