৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

নারীকে রাস্তায় দৌড়িয়ে পিটিয়ে উল্টো নারীকেই মামলা দিলেন উকিল শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

এনবি ডেস্ক:

নারীকে রাস্তায় দৌড়িয়ে পিটিয়ে উল্টো নারীকেই মামলা দিলেন উকিল শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বিগত ৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ইং তারিখে নারীকে রাস্তায় দৌড়িয়ে পিটিয়ে উল্টো নারীকেই মামলা দিলেন উকিল শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমি এ,কে এম বদরুল আলম এডভোকেট নোটারী পাবলিক (সমগ্র বাংলাদেশ) ও সরকারী আইন কর্মকর্তা হিসাবে সুনামের সহিত আইন পেশায় নিয়োজিত আছি।

আমার বসত বাড়ির পশ্চিম পাশে ১৪ফুট, সরকারী রাস্তা হইতে ৭ফুট প্রস্থে ৩৭ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৩ ফুট প্রস্থে ১৩৩ ফুট দৈর্ঘ্য পায়ে চলার রাস্তা বিদ্যমান আছে। ৭ফুট প্রস্থের রাস্তাটি আমার নিজস্ব ও ৩ফুট প্রস্থের রাস্তাটি যৌথ। ৪৮৬ নং খলিল কুটির উত্তর মৌড়াইল (দক্ষিণ সরকার পাড়া) আমার বসত বাড়ির পশ্চিম পার্শ্বে আমার নিজস্ব ৭ফুট প্রস্থের রাস্তার পাশে আমার সৃজিত ও রক্ষিত ১টি বড়ই ও ১টি ঔষধি গাছ বিগত ১৫/০৮/২০২০ইং তারিখ দুপুর অনুমান ২ ঘটিকার সময় আকলিমা আক্তার কাটিয়া ফেলে। আমি ও আমার পরিবার বাধা দিলে আমাদেরকে আক্রমন করার উদ্দেশ্যে আকলিমা আক্তার ও তাহার স্বামী শাহ আলম চৌধুরী শক্তির দাফট দেখাইয়া এক ত্রাসের রাজস্ব সৃষ্টি করিয়া আমাদেরকে চরম আতংকের ফেলিয়া হুমকি দিলে আমি নিরুপায় হইয়া দ্রুত বিচার আইনে মামলা করি। যাহা চলমান।

এমতবস্থায় আমার মামলাটিকে ভীন্ন খাতে প্রবাহিত করার হীন উদ্দেশ্যে ও আইনজীবী হিসেবে আমার সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য বিগত ৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ইং তারিখে আমার মামলার আসামী পক্ষ দ্বারা প্রভাবিত হইয়া ও উক্ত জঘন্য মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যে প্রনোদিত সংবাদটি প্রচার করা হয়। ফলে উক্ত শিরোনামে তেপান্তর নেট প্রকাশিত সংবাদটির আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এখানে উল্লেখ যে, তেফান্তর পাঠকের অন্তরে তেপান্তর নেট আমার বা আমার পরিবারের কোন সদস্য আকলিমা আক্তারকে দৌড়ায়াছে অনুরুপ কোন ছবি নাই। আমাকে সম্পুর্ন ভাবে হেয় প্রতিপন্ন ও সমাজে আমার সুনাম বিনষ্ট করার হীন উদ্দেশ্যে একটি সাজানো আলোকচিত্র ছাপাইয়াছে।

উক্ত আলোক চিত্রের সহিত আমাকে জড়ানোর জন্যও আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আরও উল্লেখ্য থাকে যে, উক্ত আকলিমা আক্তার আমি এবং আমাল ছেলে ও আমার আতœীয় স্বজনদের নামে নারী নির্যাতন ও মারপিটসহ যে কোন মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদেরকে জেল খাটাইবে বলে বিভিন্ন ভাবে হুমকী ধামকী দিচ্ছে।
প্রতিবাদকারী

এডঃ এ,কে এম বদরুল আলম
জেলা আইনজীবী সমিতি
ব্রাহ্মণবাড়িয়া।