১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

সরাইলে সংঘর্ষে ওসিকে আহত করার ঘটনায় আসামী আড়াই শতাধিক, পুরুষ শুন্য গ্রামটির একাংশ

এনবি ডেস্ক:
সরাইলে পুলিশ এ্যাসল মামলায় একই গ্রামের দুই দলের আড়াই শতাধিক লোককে আসামী করা হয়েছে। এতে করে পুরুষ শুন্য হয়ে যাচ্ছে গ্রামটির একাংশ। গত বুধবার ও সোমবার সদর ইউনিয়নের উচালিয়া গ্রামের দুই পক্ষের মধ্যে দুই দিনের সংঘর্ষের পর ওসিসহ মোট ৪০ জন আহত হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, গত সোমবার ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে হাসপাতাল মোড়ের সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদকালে উচালিয়াপাড়া গ্রামের ইউনুছ মিয়া ও শামীম মিয়ার মধ্যে মারধরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনা সংঘর্ষে রূপ নেয়। এরই জের ধরে গত বুধবার ওই দলের লোকজন ফের সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে আহত হয় ৩০ জন।

আহত হন সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহাদাৎ হোসেন টিটু। সেই সাথে আরো তিন পুলিশ সদস্য। বুধবার রাতেই এএসআই গোপী মহন সরকার বাদী হয়ে দায়িত্ব পালনকালে পুলিশকে মারধর করে আহত করার অভিযোগে ৮৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা সহ মোট আড়াইশতাধিক লোককে আসামী করা হয়েছে। বুধবার দিবাগত গভীর রাতে ওই গ্রামের দুই

এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। রাতভর অভিযান করে কোন আসামীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।
সরাইল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ নূরুল হক বলেন, সংঘর্ষ চলাকালে দায়িত্ব পালন করতে ওসি মহোদয়কে লক্ষ্য করে ঢিল ছুঁড়ে জনৈক দাঙ্গাবাজ। ফলে উনার নাকের হাড় ফেকচার হয়ে যায়। এ ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।