Advertisement

পুলিশী বাঁধায় মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী সভা বন্ধ

NewsBrahmanbaria

এই আর্টিকেল টি ৮৪৩।

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যেই মাদক ও কিশোর গ্যাং বিরোধী সভা ডেকে পুলিশের বাঁধার মুখে পড়ে সভা করতে পারেন আলোচিত ইসলামী বক্তা মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী। বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের চাপুইর গ্রামে সভাস্থলে গিয়ে পুলিশ সভা বন্ধ করে দেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চাপুইর গ্রামে মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরীর বাসার সামনে খোলা জায়গায় “দাওয়াতে ঈমানী বাংলাদেশ” নামের একটি সংগঠন রমাদক ও কিশোর গ্যাংবিরোধী সভার আয়োজন করে। সভায় মাছিহাতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল আমিনুল হক পাভেল প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিলো, কিন্তু তিনি সভায় যান নি।

দুপুরে সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহরাব হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল সেখানে গিয়ে সভা বন্ধ করতে বলেন। করোনাভাইরাসের কারণে গণজমায়েত করা যাবেনা বলে জানান এসআই সোহরাব।

এ ব্যাপারে মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের এলাকায় মাদক এমনভাবে ছড়িয়ে পড়েছে, যার জন্য মাদক বিরোধী সভা করা খুবই প্রয়োজন মনে করেছি। যে কিশোররা পড়ালেখা করে দেশ ও জাতির কল্যাণ করবে, তারা কিশোর গ্যাং তৈরি করছে। তাদেরকে সচেতন করার জন্য এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে সাথে নিয়ে ছোট পরিসরে মাদক ও কিশোর গ্যাংবিরোধী সভার আয়োজন করা হয়েছিল।

প্রশাসন আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরবর্তীতে তারাও এ অনুষ্ঠানে থাকবেন।
এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহরাব হোসেন জানান, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারিভাবে গণজমায়েত নিষিদ্ধ রয়েছে। তাই খবর পেয়ে তাহেরীর সভা বন্ধ করে দিয়েছি।

এ ব্যাপারে সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, কোনো ধরনের অনুমোদন ছাড়া এ ধরনের সভার আয়োজন করা বে-আইনি। তাছাড়া করোনা পরিস্থিতিতে গণজমায়েত নিষিদ্ধ হওয়ায় এই সভা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

Advertisement

Sorry, no post hare.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com