১৮ই আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২রা জুলাই, ২০২০ ইং

নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় ৫ নেতাকে বহিস্কারের প্রস্তাব গ্রহণ

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আওয়ামীলীগের পাঁচ নেতাকে দলের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে বহিষ্কারের প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে। বিভিন্ন নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর (নৌকা প্রতীকের) বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে নেতা-কর্মীদের সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

জেলা আওয়ামীলীগ সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার জেলা শহরের বঙ্গবন্ধু স্কয়ারের জাতীয় বীর আব্দুল কুদ্দুস মাখন পৌর মুক্তমঞ্চে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সম্মেলনে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাবিবুল্লাহ বাহারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী।

সম্মেলনে নেতা-কর্মীদের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিগত জেলা পরিষদ নির্বাচন, সংসদ নির্বাচন ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়।

সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে সাংগঠনিক প্রতিবেদনে তাদের বিরুদ্ধে নৌকা বিরোধী কর্মকান্ডের অভিযোগ উত্থাপন করলে সম্মেলনে উপস্থিত সকল ডেলিগেট ও কাউন্সিলরগণ এই প্রস্তাবে সায় দেন।

বহিস্কারের প্রস্তাব নেয়া নেতারা হচ্ছেন জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত চেয়ারম্যান শফিকুল আলম, জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমানুল হক সেন্টু, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ হেলাল উদ্দিন, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মিসেস মিনারা আলম ও জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি কাউসার আহমেদ।

সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক প্রতিবেদনে বিগত জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীদের বিরোধীতা করায় গঠনতন্ত্রের ৪৭(ক) ধারা মোতাবেক তাদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির কাছে এই সুপারিশ করা হয়।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার বলেন, বিগত কয়েকটি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীদের বিরোধীতা করায় গঠনতন্ত্র মোতাবেক তাদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির কাছে এই সুপারিশ করা হবে। তিনি বলেন, সম্মেলনের এই প্রতিবেদন কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হবে।
এ ব্যাপারে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল আলম বলেন, আমরা কখনো নৌকার বিরোধিতা করিনি। সংসদ নির্বাচনে নৌকার পক্ষে প্রচারণা ও প্রচারপত্র বিলি করেছি।

পৃথক ঘটনায় ২ জন খুন