Advertisement

NewsBrahmanbaria

এই আর্টিকেল টি ৭৯৩।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লকডাউনের মধ্যেই  জানাযায় মানুষের ঢল,  ৮ গ্রামের বাসিন্দারা হোম কোয়ারেন্টাইনে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
পূর্ব ঘোষনা ছাড়া লকডাউনের মধ্যেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সরাইল উপজেলার বেড়তলা গ্রামে মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর নামাজে জানাযায় প্রায় লাখো মানুষ অংশ নেয়ায় জেলার তিন উপজেলা ৮টি গ্রামের বাসিন্দাদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করতে ৮ গ্রামকে লকডাউনের নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

শনিবার সন্ধ্যায় গ্রামগুলোতে নির্দেশনার বিষয়ে মাইকিং করে জানিয়ে দেয়া হয়। গ্রামগুলো হল আশুগঞ্জ উপজেলার খড়িয়ালা, বৈগইর, মৈশাইর, সরাইল উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের শান্তিনগর, সীতাহরণ, বড়ইবাড়ি ও বেড়তলা, সদর উপজেলা মালিহাতা গ্রাম। এই গ্রামের কেউ আগামী ১৪দিন বাড়ি থেকে বের হলেই আইন শৃঙ্খলাবাহীনি কঠোর আইন আনুগ ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষনা দিয়েছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সরাইল (সার্কেল) মাসুদ রানা জানান, প্রশাসনের নির্দেশে গ্রামের বাসিন্দাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নে ৮ গ্রামকে লক ডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চত করতে এলাকাগুলোতে সার্বক্ষণিক পুলিশের টহল থাকবে। সেই সাথে এই গ্রামের কাউকে গ্রাম থেকে বের হতে দেয়া হবে না। খোলা থাকবে না কোন কোন দোকানপাট। যে কোন প্রয়োজনে জনপ্রতিনিধিদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা প্রয়োজনীয় ব্্যবস্থা নিবেন।

প্রসঙ্গত, শনিবার সকাল ১০টায় আর্ন্তজাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামী চিন্তাবিদ ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারীর নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। মাদ্রাসার প্রান্তর ছাড়িয়ে জানাযার সারি দীর্ঘ হয় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বিস্তুৃর্ন এলাকায়। এতে দেশের বিভিন্ন স্থান এবং জেলার শীর্ষ আলেমরা ছাড়াও মাদ্রাসা ছাত্র এবং সাধারন মানুষ যোগ দেন।
এদিকে দেশে করোনা পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরুত্ব মানার কথা থাকলেও বড় ধরনের জামাত হওয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা চলছে। শুক্রবার বিকেল পৌনে ৬টায় জেলা শহরের মার্কাস পাড়ায় নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রখ্যাত এই আলেম। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।

Advertisement

Sorry, no post hare.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com