২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ. ৯ই আগস্ট, ২০২২ ইং

নবীনগরে স্মার্ট কার্ড বিতরনের স্থান পরিবর্তন করায় জনগনের মধ্যে ক্ষোভ

মোঃ রাসেল আহাম্মেদ,এনবি ডেস্ক:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে স্মার্ট কার্ড (জাতীয় পরিচয়পত্র) বিতরন কার্যক্রম শুরু হওয়ার কয়েক ঘন্টা আগে কার্ড দেয়ার স্থান পরিবর্তন করায় স্মার্ট কার্ড না পেয়ে অনেকেই হতাশ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। এ ঘটনায় সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় এমপির নির্দেশে উপজেলা নির্বাচন অফিসার স্থান পরির্বতন করেছেন বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন।

এলাকাবাসী জানান মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নের তিলোকিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্মার্ট কার্ড বিতরণ হওয়ার কথা ছিলো। এ উপলক্ষে গত ৩ আগষ্ট উপজেলা নির্বাচন অফিসার স্বাক্ষরিত একটি নোটিশে বলা হয়, ৬ আগষ্ট সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত তিলোকিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে উপজেলার দূর্গারামপুর, তিলোকিয়া, শোভারামপুর, হরিপুর ও কিশোরপুর গ্রামের লোকদের স্মার্ট কার্ড বিতরন করা হবে। এজন্য তিলোকিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাঙ্গনে প্যান্ডেলও তৈরি করা হয়। বিদ্যালয়ের পাঠদান বন্ধ সহ সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়।

কিন্তু নির্ধারিত সময়ের কয়েক ঘন্টা আগে উপজেলার বীরগাঁও স্কুল এন্ড কলেজে স্মার্ট কার্ড দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। গতকাল সোমবার সকালে বীরগাঁও স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গনেই স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হয়। এদিকে হঠাৎ করে স্থান পরিবর্তন হওয়ায় অনেকেই তিলোকিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে উপস্থিত হয়ে স্মার্ট কার্ড না পেয়ে হতাশ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

তিলোকিয়া গ্রামের বৃদ্ধ আবুল কাশেম বলেন, শুনেছি এমপি সাহেবের নির্দেশে স্মার্ট কার্ড বিতরনের স্থান পরিবর্তন করা হয়েছে। বুড়া বয়সে নদী পাড় হয়ে বীরগাঁও কলেজে কি যেতে পারব? এ ব্যাপারে বীরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির আহম্মেদ বলেন, রোববার রাতে তাকে স্থান পরিবর্তনের কথা জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার জাহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, তিলোকিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঁচটি গ্রামের প্রায় সাড়ে ৪ হাজার লোকের স্মার্ট কার্ড বিতরনের কথা ছিলো। তিনি অভিযোগ করে বলেন, শুধুমাত্র রাজনৈতিক কারনে স্থান পরিবর্তন করে সাধারণ মানুষকে কষ্ট দেওয়া হচ্ছে। নদী, নালা, খাল বিল পাড়ি দিয়ে ৫ গ্রামের মানুষ বীরগাঁও স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে যেতে চাচ্ছেনা। এ ঘটনায় সাধারণ মানুষ ক্ষুদ্ধ হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম জানান, স্থানীয় এমপি মহোদয়ের নির্দেশে স্থান পরিবর্তন করা হয়েছে। তিনি বলেন, এমপি স্যার জনপ্রতিনিধি, জনগনের সুখ-দুঃখতো তিনিই ভালো বুঝেন। এছাড়া বীরগাঁও স্কুল এন্ড কলেজ ক্যাম্পাসটি বড় হওয়ায় সেখানে স্মার্ট কার্ড বিতরনে সুবিধা হবে। তিনি বলেন, সোমবার সেখানে স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হয়েছে। তিনদিন পর্যন্ত এই স্থানে স্মার্ট কার্ড বিতরন করা হবে।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com