১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

শিক্ষাখাতে বাজেট বাড়ানো ও ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার:

২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটকে শিক্ষা বিরোধী ও বাজেটকে শিক্ষাকে পণ্য এবং শিক্ষার্থীদেরকে ভোক্তা বানানোর বাজেট হিসেবে আখ্যায়িত করে প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়েছে। পাশাপাশি শিক্ষাখাতে বাজেটের ২৫ শতাংশ, জিডিপির আট শতাংশ বরাদ্দ দেয়া এবং বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট বাতিলের দাবিও জানানো হয়েছে।

রবিবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীর উদ্যোগে হওয়া মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়। জেলা কমিটির আয়োজনে সংগঠনটির সভাপতি ফাহিম মুনতাসিরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সানিউর রহমানের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী মাসুদ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ খান, সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট মো. নাসির মিয়া, বিজয়নগর উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড দীপক চৌধুরী বাপ্পী, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড নজরুল ইসলাম, জেলা যুব মৈত্রী’র সদস্য সচিব কমরেড ফরহাদুল ইসলাম পারভেজ, জেলা ছাত্র মৈত্রী’র কার্যাকরি সদস্য মুহয়ী শারদ, তানিয়া সুলতানা ঊষা, আয়াসুল ইসলাম আসিফ, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক রূপম ধর, মেহেদী, হোসাইন ইসলাম জয় প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, ‘শিক্ষার বানিজ্যিকরণ বন্ধ করতে হবে। বাজেটে শিক্ষা খাতে ২৫ শতাংশ বরাদ্দ করতে হবে এবং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার করতে হবে।’ এছাড়া জাতীয় বাজেটে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় বিশেষ বরাদ্দ রাখার দাবি জানানো হয়।