১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

ভেজাল জুস ও লাচ্ছি তৈরীর দায়ে এক কারখানাকে সিলগালা ॥ জরিমানা ও কারাদন্ড

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভেজাল জুস ও লাচ্ছি তৈরীর দায়ে একটি কারখানাকে সিলগালা এবং কারখানা মালিককে ২ লাখ টাকা জরিমানা ও তিন মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

বুধবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট প্রশান্ত বৈদ্য সদর উপজেলার রামরাইল ইউনিয়নের বিজেশ্বর গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে “জি বি হলিষ্টিক ফুডস্্ এন্ড এন্ড বেভারেজ” নামক কোম্পানীর মালিক জাকির হোসেন মোবারক-(৫৫) কে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন।

অর্থ জরিমানা দেয়া জাকির হোসেন মোবারক সদর উপজেলার রামরাইল ইউনিয়নের বিজেশ্বর গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট প্রশান্ত বৈদ্য বলেন, উপজেলার বিজেশ্বর গ্রামে “জি বি হলিষ্টিক ফুডস্ এন্ড বেভারেজ” নামে একটি কারখানায় অবৈধভাবে চার ধরনের ভেজাল জুস ও লাচ্ছি তৈরী করে আসছিলেন। বুধবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কারখানায় অভিযান চালিয়ে কারখানাকে সিলগালা ও কারখানার মালিক জাকির হোসেন মোবারককে দুই লাখ টাকা জরিমানা ও তিন মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন।

তিনি বলেন, অবৈধ এই কারখানাটিতে জুস ও লাচ্ছি তৈরির ক্ষেত্রে তাদের বিএসটিআইয়ের কোন ধরনের অনুমতি ও কোম্পানিতে কোন ক্যামিষ্ট নেই। কোনো ধরনের নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে কারখানায় ভেজাল জুস ও লাচ্ছি তৈরী করছে। এ ছাড়া তারা যে সব মেটারিয়াল ব্যবহার করছে তা মানবদেহের জন্যে ক্ষতিকারক। তাই কারখানার মালিক জাকির হোসেন মোবারকে ২ লাখ টাকা অর্থদন্ড জরিমানা ও কারাদন্ড এবং কারখানাকে সিলগালা করা হয়।

অভিযানকালে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ শরীফ নেওয়াজ, ভোক্তা অধিকার ও সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মোঃ মেহেদী হাসানসহ সদর থানা পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।