২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ১২ই এপ্রিল, ২০২১ ইং

শাল্লায় হামলার প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ও নাসিরনগরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার:

সুনামগঞ্জে শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার ও দ্রুত বিচারের দাবীতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখা উদ্যোগে স্থানীয় বঙ্গবন্ধু স্কয়ার থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রেসক্লাবের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সোমেশ রঞ্জন রায়ের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি মনোরঞ্জন দেবনাথ, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি নিতিশ রঞ্জন রায়, হিন্দু নেতা আশীষ পাল প্রমূখ।

এই সময় বক্তারা বলেন, দেশে বিভিন্ন সময় হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর একের পর এক হামলার ঘটনার সুষ্ঠ বিচার না হওয়ার কারণেই এই ধরণের ঘটনার পুণরাবৃত্তি হচ্ছে। তারা দ্রুত শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে সংঘটিত হিন্দু বাড়ি-ঘর ও মন্দিরে ভাংচুর এবং লুটপাটের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করে বিচারের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের বরখাস্থের দাবি জানান।

এদিকে- সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে সংগঠিত সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিভিন্ন সংগঠনের অংশগ্রহনে নাসিরনগর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

স্থানীয় পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) অনাথবন্ধু দাসের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক নির্মল চৌধুরী সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি কাজল জ্যোতি দত্ত,ডাঃ শ্রীবাস চন্দ্র দাস,কার্ত্তিক দাস,প্রভাষক প্রার্থ প্রতীম সোম,চন্দন দেব,অরুণ জ্যোতি ভট্রাচার্য,পরিমল চন্দ্র দাস,তপন চৌধুরী,প্রমোদ সাহাজী,সুজিত চক্রবর্তী,সবুজ দাস,চঞ্চলা সরকার,স্বরজিত দাস,অনিক মজুমদারসহ আরো অনেকে।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে এবং জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে হেয় করার জন্য কতিপয় উগ্রবাদী জঙ্গিগোষ্ঠী বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর বর্বরোচিত হামলা নির্যাতন করে আসছে।এরই ধারাবাহিকতায় শালায় সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটেছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে শাল্লায় সংগঠিত হামলায় জড়িতদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধন শেষে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা নাজমা আশরাফীর কাছে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। মানববন্ধনের পূর্বে স্থানীয় গৌরমন্দির প্রাঙ্গণ থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়।

৪৯ মামলায় আসামী ৩৫ হাজার,…