২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ১২ই এপ্রিল, ২০২১ ইং

শিক্ষককে লাঞ্ছিত করায় ভাইস চেয়ারম্যানের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন, হাতাহাতি

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের লাউর ফতেহপুর আর.এন.টি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আল আমিন খানকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সাদেকের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে নবীনগর-কোম্পানিগঞ্জ সড়কের বাঙ্গরা বাজারের বড় ব্রিজে এ মানববন্ধন করে প্রধান শিক্ষকের জন্মভূমি কুমিল্লার মুরাদনগরের জাড়েরা গ্রামের জনগণ।

মানববন্ধনে একাত্ততা পোষন করে অংশ গ্রহন করেন মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান, আরিখ খান, লোকমান মেম্বার, লিটন সরকার, টিপু মিয়া, ডাক্তার শওকত হোসেন, আল-আমিন খান, রুবেল সরকার, আজহারুল ইসলাম, শিশু মিয়াসহ কয়েক শতাধিক গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, শিক্ষক আল আমিনকে লাঞ্ছিত করার মাধ্যমে পুরো শিক্ষক সমাজকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। একজন জনপ্রতিনিধির কাছে এমন জগন্যতম নিন্দনীয় কাজ কখনোও জাতি আশা করে না। বক্তারা প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, স্থানীয় সাংসদ ও প্রশাসনের কাছে অতি দ্রুত অভিযুক্ত ভাইস চেয়ারম্যানকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। অন্যথায় কঠিন আন্দোলনসহ নবীনগর-কোম্পানিগঞ্জ সড়ক অচল করে দেওয়ার হুঁশিয়ারী দেন বক্তারা।

শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন চলাকালে নবীনগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানের লোকজন অতর্কিত হামলা চালিয়ে মানববন্ধন পন্ড করে দেয়। এসময় দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার নবীনগর উপজেলা পরিষদ চত্তরে প্রধান শিক্ষক আল আমিন খানের উপর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সাদেকের নেতৃত্বে একদল লোক আক্রমণ করে। এর একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে ছাত্র-ছাত্রীসহ সর্বমহলে সাধারণ মানুষ ভাইস চেয়ারম্যান সাদেকের শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদে ফেঁটে পড়ে। ঘটনার ২দিন পরও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসন এই ঘটনার কোন ব্যাবস্থা গ্রহন না করায় ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সাদেকের শাস্তির দাবিতে এই মানববন্ধনের আয়োজন করেন জাড়েরা গ্রামবাসী

 

৪৯ মামলায় আসামী ৩৫ হাজার,…