৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

অটোরিকশা চালকের সততা

স্টাফ রিপোর্টার,
চলার পথে হঠাৎ করেই ব্রেক কষলেন চালক। ফোন কল রিসিভ করবেন- এমন বলেই অটোরিকশা থামিয়ে দেয়া। যাত্রীদের কেউ কেউ ভ্রু কুঁচকালেন ফোন রিসিভের জন্য এভাবে থামিয়ে দেয়ায়। আবার কেউ কেউ মনে করলেন এটাই ভালো যে চলন্ত অবস্থায় ফোনটা রিসিভ না করা।

চালকের আলাপচারিতায় যাত্রীরা একজনের আরেকজনের দিকে তাকালেন। অবাকও হলেন। চালকের আলাপে বুঝা গেলো ফোনটি তাঁর নয়। ফোনের মালিককে তিনি জানিয়ে দিলেন ফোনটি ফিরিয়ে দিতে নিজেই চলে আসছেন। মুহুর্তেই তিনি চলে গেলেন ফোনটি ফিরিয়ে দিতে।

ঘটনাটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার। যাত্রীর ফেলে যাওয়ার মোবাইল ফোন ফিরিয়ে দিয়েছেন অটোরিকশার চালক।
সোমবার বেলা সোয়া তিনটার দিকে চালকের আলাপচারিতা শুনা যায় তাঁর অটোরিকশাতে বসেই। ১০-১৫ মিনিটের মধ্যেই তিনি ফোন সেটটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দাতিয়ারা এলাকার বাসিন্দা মালিককে পৌঁছে দেন। তবে ফোন মালিকের নাম নিশ্চিত হওয়া যায় নি।

চালক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মোগড়া গ্রামের বাসিন্দা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার কাজী পাড়ার বাসিন্দা কেশব পাল জানান, কাউতলী এলাকায় যাত্রী নামিয়ে আবার তিনি শহরের দিকে আসছিলেন। এ সময় সামনে বসা থাকা এক যাত্রী ফোনটি দেখতে পেয়ে এটি কার জানতে চান। ফোনটি তাঁর নয় জানিয়ে নিজের কাছে নিয়ে নেন। টিএ রোডের ফ্লাইভারের কাছে আসার পর ফোনটিতে কল করেন মালিক। সাথে সাথে তিনি সেটটি ফিরিয়ে দিতে চান বলে জানান। ওই ব্যক্তি কাউতলী এলাকার সিটি ব্যাঙ্কের নীচে দাঁড়ানো আছেন জানালে সেখানেই তিনি ফিরে গিয়ে ফোনটি দিয়ে আসেন।