১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শিক্ষা কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার নওফেল

 

স্টাফ রিপোর্টার:

শিক্ষার মাধ্যমে সমাজ পরির্বতনের শ্লোগানে ও উচ্চ শিক্ষার প্রসারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নব-প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় “ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া” এর যাত্রা শুরু হয়েছে।

বুধবার বিকেল শহরের দাতিয়ারা বাইপাস রোডে বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের সামনে প্রধান অতিথি হিসেবে “ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া” এর শিক্ষা কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী (নওফেল)।

ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান র.আ.ম.উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপির সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সৈয়দা রুবিনা আক্তার মীরা এম.পি। স্বাগত বক্তব্য রাখেন “ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উপাচার্য (প্রস্তাবিত) অধ্যাপক ডঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর ডঃ সাজ্জাদ হোসেন, “ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’র ট্রাস্টি অধ্যাপক ডঃ দেলোয়ার হোসেন। বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়া’র ট্রেজারার প্রফেসর ফাহিমা খাতুন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী (নওফেল) এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুষম উন্নয়নে বিশ্বাসী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের প্রতিটি জেলায় সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

তিনি বলেন, রাজধানী ঢাকার বাইরে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা একটি সাহসী উদ্যোগ। তিনি বলেন, উচ্চশিক্ষা গ্রহন করতে এসে শুধুমাত্র শ্রেনীকক্ষের পাঠ গ্রহনের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে অনুষাঙ্গিক সকল প্রশিক্ষণসহ বিদেশি ভাষা শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। সকল শিক্ষার্থীকে কর্মপযোগী হিসেবে গ্রহণ করতে হবে।

তিনি বৃত্তিমূলক শিক্ষা গ্রহনের জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, একবিংশ শতাব্দির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য বহুমাত্রিক প্রশিক্ষন গ্রহণ করে নিজেদের যোগ্য করে করে গড়ে তুলতে হবে । তিনি বলেন, উচ্চশিক্ষাকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর করার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করছে। পাশাপাশি বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়ও প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামসুজ্জামান, পুলিশ সুপার মোঃ আনিসুর রহমান, ইউনিভার্সিটি অব ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যগন উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, বিবিএ, এমবিএ, ইংরেজী ও সমাজবিজ্ঞান বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির যাত্রা শুরু করে।