২৫শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ৯ই জুলাই, ২০২০ ইং

মাদ্রাসা পরিচালকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানীর অভিযোগ

এনবি ডেস্ক:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় মহিলা মাদ্রাসার পরিচালকের বিরুদ্ধে ৮ শিশু শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ সোমবার সকালে যৌন হয়রানীর শিকার এক ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থীঅসুস্থ্য হয়ে পড়লে এই ঘটনা প্রকাশ হয়।

আখাউড়া পৌরসভার দুর্গাপুর গ্রামের আন-নুর ইসলামিয়া মহিলা মাদ্রাসা ও এতিমখানায় এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছে।

স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর তাজুল ইসলামসহ উপস্থিত অভিভাবকরা জানায়, আন-নুর ইসলামিয়া মহিলা মাদ্রাসা ও এতিমখানারপরিচালক মাওলানা শওকত হোসেন রিপন বেশ কিছুদিন ধরেই ছাত্রীদের ফুসলিয়ে ভয় দেখিয়ে শিশু শিক্ষার্থীদের যৌন হয়রানী করছে। ৬ষ্ট শ্রেণী ও ৫ম শ্রেণীর দুই ছাত্রীকে তার অফিস কক্ষে যৌন হয়রানী করলে গতকাল রোববার দিবাগত রাত থেকেই তারা অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।

আজ সোমবার সকালে বিষয়টি জানাজানি হলেপরিচালকসহ সকল শিক্ষকরা পালিয়ে যায়। এদিকে অভিভাকরা খবর পেয়ে মাদ্রাসার সামনে ভীড় করতে থাকে। উত্তেজনাকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। মাদ্রাসা থেকে তাদের সন্তানদের নিয়ে যায়। যৌন হয়রানীর শিকার ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী জানায় তাদের ৮জনকে নানা বাহানায় ভয় দেখিয়ে পরিচালকযৌন হয়রানী করেছে। গতকাল রাতে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে অফিস কক্ষে নিয়ে যৌন নির্যাতন করেছে পরিচালক। হয়রানী শিকার শিক্ষার্থীরাসহ প্রায় সব শিক্ষার্থী মাদ্রাসা ছেড়ে চলে গেছে। একজনকে চিকিৎসার জন্য আখাউড়া হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে আখাউড়া থানার ওসি রসুল আহমদ নিজামী ঘটনাস্থল পরির্দশন করে বলেছেন, পরিচালকসহ সব শিক্ষক পালিয়েছে। পরিচালককে গ্রেফতার করতে ইতিমধ্যে পুলিশের বিশেষ অভিযান শুরু হয়েছে।