১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ. ১৬ই আগস্ট, ২০২২ ইং

শিমরাইলকান্দি ছেলে ধরা গুজব ও ডেঙ্গু বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার:

পৌর এলাকার শিমরাইলকান্দি (দঃ) বে-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রোববার সকালে ছেলে ধরা নিয়ে গুজব এবং ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে সচেতনতা বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মইনুল হক চৌধুরী।

বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক হাজী হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিল্প মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, বিদ্যালয়ের সহকারি পরিচালক ফুয়াত আল জিসান, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিল্পী রানী পাল।

বক্তব্য রাখেন সহকারি শিক্ষিকা আফরোজা বেগম আঞ্জু, রিপা কর্মকার, সেলিনা বেগম, আফরিন হক পপি, তাহমিনা আক্তার শিপন, কামরুন নাহার চাঁদনী, আয়েশা আক্তার, সালমা বেগম, শিখা দাস প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পদ্মা সেতু হচ্ছে দেশের সর্ববৃহৎ একটি উন্নয়ন প্রকল্প। সরকার বিরোধী একটি চক্র দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডকে বাঁধাগ্রস্ত করতে সুপরিকল্পিতভাবে পদ্মা সেতুতে ছেলে-মেয়েদের মাথা লাগবে বলে গুজব ছড়াচ্ছে। বক্তারা বলেন, ব্রীজ নির্মানে মানুষের মাথার কোন প্রয়োজন নেই। সরকারকে অস্থিতিশীল করতেই ওই চক্রটি ফেসবুকসহ বিভিন্নভাবে গুজব ছড়াচ্ছে। বক্তারা এসব গুজবে কান না দিয়ে শিক্ষার্থীরা যাতে প্রতিদিন স্কুলে আসে সে দিকে খেয়াল রাখার জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান।

বক্তারা আরো বলেন, ডেঙ্গু জ্বর হচ্ছে এডিস মশাবাহিত একটি রোগ। সাধারণত যেসব এলাকায় গরম বেশী থাকে সে সব এলাকায় ডেঙ্গু জ্বরের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। বক্তারা বলেন, ডেঙ্গু জ্বরের ঔষধ হচ্ছে একমাত্র প্যারাসিটামল ট্যাবলেট। বক্তারা বলেন, সরকার ডেঙ্গু প্রতিরোধে নিরলসভাবে কাজ করছে। তবে আমাদেরকেও সর্তক থাকতে হবে। বাড়ির আশপাশের ঝোপঝাড় পরিষ্কার করতে হবে। শহরের ড্রেনগুলো নিয়মিত পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। বাসা-বাড়ির ফুলের টব বা বিভিন্ন জায়গায় যাতে ময়লা পানি না জমে সেদিকে সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে।

বক্তারা বলেন, শিশুদেরই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার বেশী ঝুঁকি থাকে। কারো যদি জ্বর উঠে তাহলে দেরী না করে তাকে চিকিৎসকের শরনাপন্ন হতে হবে। কারো যদি ডেঙ্গু জ্বর ধরা পড়ে আতঙ্কিত না হয়ে ওই রোগীকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চলতে হবে। বক্তারা বলেন, কারো মাথা ব্যাথা, বমি বমি ভাব, চোখ লাল, মাংসপেশীতে ব্যাথা এবং রক্তক্ষরন হলে তাকে সাথে সাথেই হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com