৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ভারী যানবাহনের চাপে নাসিরনগরের রাস্তার বেহাল অবস্থা র্দীঘ যানজট

এনবি প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগরের সড়কগুলো ভারী যানবাহনের চাপ সামলাতে পারছে না। আঞ্চলিক এ সড়কে ভারী যানবাহন চলাচল করায় সড়কগুলো দেবে গিয়ে মানুষের ভোগান্তি চরমে। সরু এ সড়কে বালু ভর্তি ভারী ড্রাম ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচলে বেহাল সড়কে মানুষের ভোগান্তির শেষ নেই। এ রাস্তা দিয়ে এখন ছোট যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এ নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

গত মঙ্গলবার রাত থেকে এ রাস্তা দিয়ে দিবা-রাত্রিতে শত শত ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে রাস্তার বিভিন্ন স্থানে দেবে কার্পেটিং সরে সড়কে গর্ত হয়ে যাচ্ছে।ছোট ছোট যানবাহন যেমন সিএনজি, টমটম, অটোরিক্সা, মোটরসাইকেল এমনকি সাধারণ মানুষও পায়ে হেঁটে চলাচল করতে পারছে না। রাস্তা সরু হওয়ায় এতে করে দু‘টি গাড়ি ক্রসিং হওয়ার সময় চাকা দেবে গিয়ে গাড়ি আটকে সরাইল থেকে নাসিরনগর পর্যন্ত ভারী যানবাহনের দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হচ্ছে।

যাত্রী ও চালকরা জানায়, আজ বৃহস্পতিবার ভোরে সরাইল কালিকচ্ছ থেকে নাসিরনগর কুন্ডা এলাকায় দুপুর পর্যন্ত আটকে রয়েছেন। ফলে তাদের দূর্ভোগের শেষ নেই। পরিস্থিতি সামাল দিতে নাসিরনগর থানা পুলিশ কাজ করছে।

নাসিরনগর থানার সাব-ইন্সপেক্টর কাওসার হোসেন জানান,গত মঙ্গলবার থেকে সরাইল-নাসিরনগর সড়কের ভারী যানবাহন হওয়ায় গাড়ির চাকা দেবে যাওয়ায় র্দীঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।এতে আমরাও হিমসিম খাচ্ছি। তবে রতন-নাসিরনগর সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা অব্যাহত আছে।

জানা যায়,ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর সেতুর একটি স্প্যান রেলিং ভেঙে পড়ারকারণে গতকাল মঙ্গলবার রাত থেকে ঢাকার সঙ্গে সরাসরি সিলেটের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। তবে বিকল্প পথে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে নাসিরনগর-সরাইল এলাকাজুড়ে কয়েক কিলোমিটার যানজট সৃষ্টি হচ্ছে।পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত যানবাহনগুলোকে বিকল্প সড়ক হিসেবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল-নাসিরনগর ও লাখাই-হবিগঞ্জ-শায়েস্তাগঞ্জ এবং মাধবপুরের রতনপুর আঞ্চলিক সড়ক ব্যবহার করতে বলা হয়েছে ।