Advertisement

২৫ হাজার কোটি টাকায় করোনাভাইরাস সারানোর সেই যুবকের গ্রেপ্তার (ভিডিও)

NewsBrahmanbaria

এই আর্টিকেল টি ১০৫৪।

স্টাফ রিপোর্টার:

বাংলাদেশ থেকে করোনাভাইরাস সারাতে ২৫ হাজার কোটি টাকা ও বিশ্ব থেকে করোনাভাইরাস সারাতে একশ হাজার কোটি টাকার দাবি করে ফেবুসকে বিভ্রান্তিকর তথ্য দেয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের সেই যুবক শ্রাবণকে-(২৪) গ্রেপ্তারের পর তার বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে সরাইল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে সরাইল থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মোঃ খলিলুর রহমান বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে এই মামলাটি দায়ের করেন। শ্রাবণ সরাইল উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের আশিকুর রহমানের ছেলে। তিনি সরাইল উপজেলার একটি বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছেন বলে জানা গেছে।

পুলিশের ধারণা, শ্রাবণ মানসিকভাবে অসুস্থ । শ্রাবণ এক ভিডিও বার্তায় বাংলাদেশকে করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত করার বিনিময়ে ২৫ হাজার কোটি টাকা ও বিশ্বকে মুক্ত করার জন্য এক লাখ কোটি টাকা দাবি করেন। এটিকে ‘ ড্রিল’ উল্লেখ করে যোগাযোগ করার জন্য নিজের মুঠোফোন নম্বরও দেন তিনি। শ্রাবনের এই ভিডিও ভাইরাল হয় ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপে। অনেকেই তাকে গ্রেপ্তার করার দাবি জানান। পরে অভিযান চালিয়ে শ্রাবনের নিজ বাড়িতে থেকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওতে নিজেকে বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র উল্লেখ করে শ্রাবণ বলেন, ‘কীভাবে বাংলাদেশকে করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত করতে পারবেন সেটি আমার গবেষণায় পেয়েছি। শুধু বাংলাদেশই নয়, গোটা বিশ্বকে করোনাভাইরাস মুক্ত করতে পারবো।’

এ ব্যাপারে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহাদাত হোসেন টিটু বলেন, শ্রাবণ মানসিকভাবে অসুস্থ বলে মনে হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে এলোমেলো তথ্য দিচ্ছে। তার কোনো তথ্যই গ্রহণযোগ্য নয়, বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর দায়ে তার বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারি পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মোঃ মাসুদ রানা বলেন, ‘পুলিশের কাছে গ্রেপ্তারের পরও ভিডিও বার্তার বলা কথা গুলোই সে বলেছে। কে বা কারা এর ভিডিও করেছে এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Advertisement

Sorry, no post hare.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com