Advertisement

শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের নামে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি

NewsBrahmanbaria

এই আর্টিকেল টি ৭১৪।

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মহান শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ‘ভাষা আন্দোলন ও ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুশীলন সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উদ্যোগে শনিবার সকালে স্থানীয় শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্মৃতি পাঠাগারে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন অনুশীলনের আহবায়ক সাংবাদিক আবদুন নূর।

আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা এডঃ আখতার হোসেন সাঈদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিলাল বণিক, বাংলাদেশ জাসদের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হোসাইন আহমেদ তফছির, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী মাসুদ আহমেদ, জেলা তেল গ্যাস বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অ্যাডভোকটে মোঃ নাসির প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, তৎকালীন পাকিস্তান গণপরিষদে উর্দু এবং ইংরেজির পাশাপাশি বাংলাকে গণপরিষদের কার্যবিবরণীর ভাষার মর্যাদা দানের প্রস্তাবের মধ্যদিয়ে ভাষা আন্দোলনের সূত্রপাত করেছিলেন ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত। ভাষা আন্দোলন বাংলাদেশ নামক জাতি রাস্ট্র প্রতিষ্ঠার প্রথম সোপান। সেজন্যই একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের প্রথম দিকেই পাক হানাদার বাহিনীর হাতে তাকে পরিবারের সদসদ্যদেরসহ নৃশংসভাবে শহীদ হতে হয়েছিল। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে তার স্মৃতিকে আগামী প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার জন্য জাতীয়ভাবে স্বাধীনতার ৫০ বছরেও তেমন কিছুই করা হয়নি।

বক্তারা জাতীয়ভাবে শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের জন্মও মৃত্যুবার্ষিকী পালন, শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি জানান। বক্তারা আরো বলেন, বাংলাকে উচ্চ শিক্ষার মাধ্যম করাসহ প্রশাসনের সর্বক্ষেত্রে বাংলার প্রচলন,বাংলা ভাষার বিকৃতি রোধ, দেশের বিভিন্ন আদিবাসীদের মাতৃভাষা সংরক্ষণ এবং অন্তত প্রাথমিক স্তর পর্যন্ত তাদের মাতৃভাষায় শিক্ষাদান নিশ্চিত করারও দাবি জানান।

Advertisement

Sorry, no post hare.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com