Advertisement

NewsBrahmanbaria

এই আর্টিকেল টি ৯৫৫।

মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত হত্যাকারীদের বিচার দাবিতে
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত
এনবি প্রতিনিধি ॥
ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার সাথে জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার উদ্যোগে গত মঙ্গলবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধন চলাকালে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী মাসুদ আহমেদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সহ-সভাপতি শামসুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ খান, সদস্য কমরেড নজরুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট নাসির মিয়া, জেলা নারী মুক্তি সংসদের সহ-সভাপতি রোকেয়া রহমান, জেলা ছাত্রমৈত্রীর আহবায়ক মুহয়ী শারদ প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সারাদেশের মানুষ নুসরাত হত্যার বিচারের দাবিতে ফুঁসে ওঠেছে। আমরাও একাত্মতা প্রকাশ করে নুসরাত হত্যায় জড়িত সবার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। তারা বলেন, এ ঘটনার সাথে জড়িতদের ফাঁসিতে ঝুলানো উচিত। বক্তারা বলেন, কারা কারা এই ঘটনার সাথে জড়িত তা তদন্তে বের হয়ে এসেছে। তাই এই হত্যার কান্ডের দ্রুত বিচার কার্য সম্পন্ন করার জন্য সরকারের কাছে আহবান জানান তাঁরা।
মানববন্ধনে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।
উল্লেখ্য, গত ২৭ মার্চ নুসরাত জাহান রাফিকে নিজ কক্ষে নিয়ে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে আটক করে পুলিশ। ওই ঘটনার পর থেকে তিনি কারাগারে। এ ঘটনায় রাফির মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন। ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান পরীক্ষা দিতে গেলে দুর্বৃত্তরা ছাদে ডেকে নিয়ে তাঁর গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই দিন রাতে তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। গত বুধবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নুসরাত জাহান মারা যান।

Advertisement

Sorry, no post hare.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com