Advertisement

বিএনপি-জামায়াতের নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে – গণপূর্তমন্ত্রী

NewsBrahmanbaria

এই আর্টিকেল টি ২৭।
নিউজ ডেস্ক,

বিএনপি-জামায়াতের নৈরাজ্য মোকাবেলায় সর্বদা সতর্ক থাকার আহবান জানিয়েছেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি। শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪টায় বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ মাঠে তিনি এসব কথা বলেন৷

এসময় গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়৷

মোকতাদির চৌধুরী বলেন, বিজয়নগর উপজেলাকে একটি মডেল উপজেলা গড়ে যেতে চাই। বিজয়নগরের কোনো উন্নয়ন অপূর্ণ থাকবে না। শিক্ষা সংস্কৃতির জন্য জন্য যা যা করার দরকার তাই করবো। আগামী ৫ বছর দায়িত্ব পালন করতে পারলে ৫০ শয্যা হাসপাতালকে ১০০ শয্যায় রূপান্তিত করা, টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সাবরেজিস্টার ভবন, ৫০০ জনের মিলনায়তন ভবন নির্মাণ করার আশা প্রকাশ করেন।

তিনি আরো বলেন, আপনারা আজ যে জনসমুদ্র দেখিয়েছেন গণসংবর্ধনা দিয়েছেন এজন্য আমি বিজয়নগরবাসীর কাছে চিরকৃতজ্ঞ।

গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম ভূঞার সভাপতিত্বে ও আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ জহিরুল ইসলাম চৌধুরী সোহেলের সঞ্চলনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর মৃধা।

এছাড়া বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন, জেলা আ.লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি হেলাল উদ্দিন, সহ সভাপতি হাজী হেলাল উদ্দিন, জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল বারী মন্টু, উপজেলা চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলী, ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক বকুল,  সেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম আহবায়ক সুর্নিমল সাহা, উপজেলা যুব মহিলালীগের সভাপতি হালিমা চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক হৃদয় আহমদ।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবলীগের সভাপতি এড. শাহানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এড. লোকমান হোসেন, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাহামদুর রহমান মান্না, বিশিষ্ট শিল্পপতি লূৎফর রহমান মুকাই আলী, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম রুবেল, সাধারণ সম্পাদক শাহাদৎ হোসেন শোভনসহ জেলা উপজেলা আ.লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠন ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষিকা, ছাত্র-ছাত্রী এবং নানা শ্রেণি-পেশার লোকজন।

গণসংবর্ধনার পরে সন্ধ্যায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সাবেক সংসদ সদস্য কন্ঠশিল্পী মমতাজ বেগমসহ দেশ বরেণ্য সঙ্গীত শিল্পীরা গান পরিবেশনে অংশগ্রহণ করবেন।

Advertisement

Sorry, no post hare.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com