Advertisement

আখাউড়ায় বিয়ের চারদিন পর স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা করল স্বামী

NewsBrahmanbaria

এই আর্টিকেল টি ৫০।

নিউজ ডেস্ক,

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় বিয়ের ৪ দিনের পর নববধূকে গলা কেটে হত্যা করেছে স্বামী। মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) দুপুরের দিকে উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের হীরাপুর মধ্যপাড়ায় স্বামী আব্দুল হামিদ হত্যা কান্ডের ঘটনা ঘটায়।

এ ঘটনার টের পেয়ে বড় ভাই আব্দুল হানিফ এগিয়ে গেলে তাকেও ছুড়িকাঘাত করে পালিয়ে যায় হামিদ।

এলাকাবাসী ও নববধূর স্বজন সূত্রে জানা যায়, হীরাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফ মিয়ার প্রবাসী ছেলে আব্দুল হামিদের সাথে ৭/৮ মাস আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের বাসুদেব গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জামের মেয়ে তাছলিমা আক্তারের সাথে মোবাইল ফোনে বিয়ে হয়।

গত শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুই পরিবারের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে স্ত্রীকে বাড়িতে নিয়ে আসে আব্দুল হামিদ। এরমধ্যে একবার তাছলিামকে নিয়ে শ্বশুর বাড়ি থেকে বেড়িয়ে আসে। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মাঝে দাম্পত্য কলহের সৃষ্টি হয়। তারই জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে ধারালো ছুরি দিয়ে তাছলিমাকে গলা কেটে হত্যা করে স্বামী হামিদুল। এসময় হামিদুলের বড় ভাই হানিফ বাধা দিলে তাকেও হামিদুল ছুরিকাঘাত করে।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ নূরে আলম জানান, গলাকাটা রক্তাক্ত অবস্থায় নববধুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ ছিল। তবে ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতার করতে অভিযান চলছে।

তিনি আরো বলেন, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Advertisement

Sorry, no post hare.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com