১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ. ২৬শে জুন, ২০২২ ইং

জিয়া, এরশাদ ও খালেদা জিয়া দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিল -মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার:
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ,ক,ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশের ইতিহাস নিয়ে মিথ্যাচার ও ভুল শিক্ষা দিয়ে বিকৃতি ঘটানো হয়েছিল। তারা বাংলাদেশকে পাকিস্তানের মত একটা ব্যর্থ অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিল।
তবে দেশের মানুষ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সেই পরাজিত শক্তিকে ভোটের মাধ্যমে পরাজিত করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে ফেরত নিয়ে এসেছেন। আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের ২৩ বছরের মুক্তির সংগ্রাম ৯ মাসের মুক্তিযোদ্ধের সঠিক ইতিহাস সকলের সামনে তুলে ধরতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছেন।
তিনি বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্থানীয় শহীদ ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত ভাষা চত্বরে খেলাঘরের ২ যুগপূর্তি ও ৫ম সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, জিয়া, এরশাদ ও খালেদা জিয়া ২৯ বছর রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকাকালে দেশের কোন উন্নয়ন চায়নি বরং এদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিল। আর বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রায় ২২বছর রাষ্ট্র ক্ষমতাকালে দেশের সর্বত্র উন্নয়ন ঘটছে। তাই সেই কালো অধ্যায় যাতে আর ফিরে না আসে সেই প্রত্যয় ও শপথ নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।
সকালে স্থানীয় শহীদ ধীরেন্দ্রে নাথ ভাষা চত্বরে আয়োজিত সম্মেলনে উদ্বোধন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। এতে খেলাঘর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সভাপতি ডাঃ মোহাম্মদ আবু সাঈদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ শাহগীর আলম, পুলিশ সুপার মোঃ আনিসুর রহমান, ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাক্তার আশীষ কুমার চক্রবর্তী, কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের সাধারণ সম্পাদক প্রণয় সাহা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রিয়াজউদ্দিন জামি, সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রহিম বিজন। এর আগে একটি র‌্যালী শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

টিসিবির পন্য বিক্রয় শুরু

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com