২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ. ৭ই জুলাই, ২০২২ ইং

সরাইলে বিএনপির বিতর্কিত কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ

বিতর্কিতদের দিয়ে ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি করায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলা বিএনপির দুই শীর্ষ নেতার অপসারণ ও কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (২০ মার্চ) দুপুরে সরাইল উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক মো. ইয়াকুব ও তার অনুসারীরা এ কর্মসূচি পালন করেন। মিছিলটি নোয়াগাঁও গ্রামের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

বিক্ষোভ মিছিলের আগে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় লিখিত বক্তব্যে নোয়াগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সদস্য সচিব মো. আশেক মিয়া। তিনি বলেন, গত বছরের ২২ আগস্ট আমরা ফেসবুক পোস্ট থেকে জানতে পারি বিতর্কিত দুই ব্যক্তি হারুন অর রশীদকে আহ্বায়ক ও আতাহার হোসেনকে সদস্য সচিব করে নোয়াগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি অনুমোদন দেয় উপজেলা বিএনপি। এ নিয়ে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আনিসুল ইসলাম ঠাকুরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সদস্য সচিব নুরুজ্জামান লস্কর তপুর চাপে তিনি কমিটি অনুমোদন করেছেন।

এই কমিটিতে ত্যাগী নেতাকর্মীদের অন্তর্ভূক্ত করার আবেদন জানালেও আহ্বায়ক-সদস্য সচিব তা আমলে নেননি। তিনি আরও বলেন, গত বছরের ২০ অক্টোবর নোয়াগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি থেকে ১৭ জন সদস্য পদত্যাগ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে। এ অবস্থায় গত ১৫ মার্চ ফেসবুক পোস্টে জানতে পারি নোয়াগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলন কালিকচ্ছ ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এটি হাস্যকর ও লজ্জাজনক। এ নিয়ে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। আশেক মিয়া বলেন, বিতর্কিতদের দিয়ে কমিটি গঠনের বিষটি কেন্দ্রীয় বিএনপিকে অবহিত করা হয়েছিল।

রোববার (২০ মার্চ) কেন্দ্রীয় বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়ার নেতৃত্বে একটি টিম সরাইল এসেছে। এই টিম আমাদের সাথে আলোচনা করার কথা ছিল। কিন্তু রহস্যজনক কারণে তারা আমাদের সাথে কথা বলেনি। সেজন্য উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবকে দল থেকে অপসারণ করে ত্যাগী নেতাকর্মীদের দিয়ে নতুন কমিটি গঠনের দাবি জানান তিনি।

এদিকে, একই দাবিতে সরাইল উপজেলার চুন্টা ও অরুয়াইল ইউনিয়নেও বিএনপির পদবঞ্চিতরা বিক্ষোভ করেছেন। সেখানেও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ যায়নি।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com