২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ. ৬ই জুলাই, ২০২২ ইং

গাঁজা, প্রাইভেটকার, মাইাক্রোবাস, কসবা উপজেলার ৭জনকে আটক করে র‌্যাব-১৪

কিশোরগঞ্জের ভৈরব থেকে ৫২ কেজি মাদকদ্রব্য গাঁজা’সহ ০৭ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩, ভৈরব ক্যাম্প।

আজ ২২ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টায় র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩, ভৈরব ক্যাম্প এর কিশোরগঞ্জের আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব থানাধীন নাটালের মোড় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ঢাকাগামী লেনের উপর অভিযান চালিয়ে প্রাইভেটকারে থাকা ৫২ কেজি গাঁজাসহ ও নগদ মাদক বিক্রির ৩৪৫০০ টাকাসহ ৭ জনকে আটক করে।


আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা উপজেলার গঙ্গানগর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মোঃ ইকবাল মিয়া(২৮), বাইসার গ্রামের আব্দুল জব্বার মিয়ার ছেলে সাদেক মিয়া(৩৮), নোয়াগাঁও গ্রামের টুনু মিয়া ছেলে শিপন মিয়া(২৯), মোঃ হেলাল মিয়া(৩৮), রাণীয়ারা গ্রামের মৃত শহিদ মিয়ার ছেলে হেলাল মিয়া, গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে মোঃ মাসুম মিয়া(২৬), ৬। বগাবাড়ী গ্রামের মৃত মদন মিয়ার ছেলে মোঃ নুর আমিন (২৪), কালতা খুরাইশার গ্রামের মৃত শহিদ মিয়ার ছেলে মোঃ দিদার হোসেন(২৫)।
র‌্যাব-১৪, ভৈরব ক্যাম্পের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সিনিয়র সহকারী পরিচালক কোম্পানী অধিনায়ক রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের সাংবাদিকদের কাছে মেইলে বার্তা প্রেরণ করে জানান, গোপন সংবাদে প্রাইভেটকারে বিপুল পরিমান মাদক পাচারের খবর পেয়ে প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস গতিরোধ করি। এসময় প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাসে থাকা ৫২ কেজি মাদকদ্রব্য গাঁজা, এবং মাদক বিক্রয়ের নগদ ৩৪৫০০/- টাকা উদ্ধার করে। পরে ৫২ কেজি গাঁজা, নগদ ৩৪৫০ টাকাসহ প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস উদ্ধার জব্দ করা হয়। তিনি আরোও জানান, উক্ত মাদক ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন যাবৎ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে চোরা চালানের মাধ্যমে গাঁজা দেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন স্থানে পাচার করে থাকে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে বিক্রয় করে মর্মে স্বীকার করে।

উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য এবং গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com