২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ১৬ই মে, ২০২১ ইং

গর্ত করে অভিনব পদ্ধতিতে জায়গা দখলের চেষ্টা!

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে ভূমিদস্যু চক্রের বিরুদ্ধে এবার গর্ত করে অভিনব পন্থায় জায়গা দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলায় সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের উথারিয়া পাড়ায় মৃত আব্দুস সাত্তার ভূইয়ার সিঙ্গারবিল মৌজার ( জেএল নং-৪০৮, বিএস-৯৪৫ দাগ, সাবেক দাগ-৭০৪/৭০৫, ৭০৬/৭০৭ দাগে) ৬০ শতাংশ ভূমি দখলে নেয়ার জন্য স্থানীয় একাট ভূমিদস্যু চক্র উক্ত জায়গাটিতে বড় বড় গর্ত খুঁড়েছে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী অসহায় পরিবারের পক্ষ থেকে ফরিদা ইয়াছমিন মুন্নী আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত সংশ্লিষ্ট থানাকে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা সরেজমিনে বিষয়টি পরিদর্শন করে আদালতে ২৭-১০-২০২০ইং এ প্রতিবেদন দাখিল করে। আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালত জায়গাটিতে ১৪৪ ধারা জারি করেছেন। কিন্তু আদালতের আদেশ অমান্য করে ভূমিদস্যু চক্রটি রাতের আধারে জায়গাটিতে ঘর তুলে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিজয়নগর উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের উথারিয়াপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তার ভূইয়া ৬০ শতাংশ ভূমির মালিক ছিলেন। তাঁর মৃত্যুর পর জায়গাটি ওয়ারিশরা ভোগ-দখলে করছে। কিন্তু আব্দূল বাছির ও তার সহযোগীরা জোরপূর্বক উক্ত জায়গা দখলে নেয়ার পাঁয়তারা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন জমির মালিক ।

ভূক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা জানান, ভূমিদস্যু চক্রটি আমাদের পৌত্রিক জায়গাটিতে মার্কেট বানানোর জন্য অনেকদিন যাবৎ জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা করছে। এখন আমরা নিরূপায় হয়ে আদালতে মামলা করি। কিন্ত তারা আদালতের আদেশ অমান্য করে বাছির ও তার সহযোগীরা রাতের আধারে বড় বড় গর্ত করে জোর পূর্বক ঘর উঠায় । এ ঘটনায় আমরা এখন পরিবার পরিজন নিয়ে চরম আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।

এবিষয়ে মামলার বিবাদী আব্দুর বাছির বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সঠিক নয়।

এ ব্যাপারে বিজয়নগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আতিকুর রহমান জানান, বিষয়টি আমাদের নজরদারীতে আছে । হুমকীর বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থ গ্রহণ করা হবে।