৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ. ১৯শে আগস্ট, ২০২২ ইং

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে তানজিনা আক্তার-(১৩) নামের এক কিশোরী। শুক্রবার বিকেলে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়–য়া বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের বিরামপুর গ্রামের জহির মিয়ার কন্যা তানজিনা আক্তারের সাথে জেলার বিজয়নগর উপজেলার পত্তন গ্রামের এক যুবকের গতকাল শুক্রবার বিকেলে বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো।

বিষয়টি গোপন সূত্রে জানতে পেরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়–য়া বিয়ে বাড়িতে বর পৌছার আগেই গিয়ে উপস্থিত হয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন। পরে মেয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না মর্মে তানজিনার অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেকা আদায় করেন।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়–য়া জানান, গত দুই বছর আগে তানজিনা আক্তার পঞ্চম শ্রেণী পাশ করেছে। বর্তমানে তার পড়াশুনা বন্ধ। তিনি বলেন, বাল্য বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com