৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ১৭ই মে, ২০২১ ইং

২ দোকানীকে জরিমানা ৬৫ কেজি পচা খেজুর জব্দ

স্টাফ রিপোর্টার
পবিত্র মাহে রমজানকে সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সদর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শহরের কয়েকটি মার্কেট ও ফুটপাতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়েছে। সোমবার বিকেলে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়–য়ার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত শহরের মসজিদ রোডে অভিযান পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমান আদালতকে দেখেই ফুটপাতের দোকানী তার পঁচা খেজুর ফেলে পালিয়ে যায়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত আনুমানিক ৬৫ কেজি খাবার অনুপযোগী পঁচা খেজুর জব্দ করে শহর খালে সেই খেজুর ধ্বংস করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত আনন্দ বাজার অভিযান চালিয়ে অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খেজুর বিক্রির দায়ে ভাসমান বিক্রেতা শহরতলীর বিবাসারের আবুল হোসেন-(২৫) কে এক হাজার টাকা জরিমানা করেন ও ভবিষ্যতের জন্য তাকে সর্তক করেন। পরে ভ্রাম্যমান আদালত আনন্দ বাজারের জালাল এন্টারপ্রাইজ নামক চালের দোকানে প্লাষ্টিকের বস্তায় চাল পাওয়ার দায়ে দোকানীকে জালাল উদ্দিনকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং ভবিষ্যতে তাকে পাটের বস্তায় চাল রাখায় নির্দেশ দেন।

ভ্রাম্যমান আদালত চলাকালে সদর উপজেলা স্যানেটারী ইন্সপেক্টর মোঃ শফিকুর রহমান সহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ বড়–য়া বলেন, ভোক্তা অধিকার আইনে অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খেজুর বিক্রির দায়ে এবং পাটের ব্যাগ ব্যবহার না করে প্লাষ্টিকের বস্তায় রেখে চাল বিক্রির দায়ে দুই দোকানীকে তিনহাজার টাকা জরিমানা ও দুটি মামলা দায়ের করা হয়। আনুমানিক ৬৫ কেজি খাবার অনুপযোগী ও পঁচা খেজুর জব্দ করে ধ্বংস করা হয়। তিনি বলেন, রমজান মাসে প্রতিদিনই ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চলবে।