১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

যুবলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে এসি চুরির মামলা

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আলী আজমের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগে মামলা হয়েছে। নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শরীফ মাহমুদ রবিবার এ মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দিয়েছেন।

আলী আজম (৪২) সদর উপজেলার নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নের সিন্দুরউড়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি জেলা যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যান বিষয়ক সম্পাদক এবং জেলা

যুবলীগের নতুন কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী। শরীফ মাহমুদন একই ইউনিয়নের কালিসীমা গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নের নরসিংসার বাজারে ইউনিয়ন যুবলীগের কার্যালয় অবস্থিত। গত বছরের ১১ অক্টোবর সন্ধ্যা সাতটার সময় ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শরীফ মাহমুদ দৈনন্দিন কার্যাবলী সম্পন্ন করে কার্যালয়ের দুটি শাটার তালাবদ্ধ করে বাড়ি চলে যান। পরের দিন গত বছরের ১২অক্টোবর বিকেল পাঁচটার দিকে কার্যালয় খুলেন শরীফ মাহমুদ। তখন তিনি কার্যালয়ের শাটারের তালা পাননি।

শাটার খুলে তিনি কার্যালয়ে থাকা ২৮ হাজার টাকা মূল্যের ৪২ ইঞ্চির স্যামস্যাং ব্র্যান্ডের একটি এলইডি টেলিভিশন, ২৮ হাজার টাকা মূল্যের একটি পানি বিশুদ্ধকরণ, ৮৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি দেড় টন শীতাতপনিয়ন্ত্রক (এসি) চুরি হয়েছে বলে দেখতে পান। পাশাপাশি দপ্তরের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি ও দলিলাদি খোয়া গেছে বলে দেখতে পান তিনি।

তবে আলী আজম এ অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, এসব পণ্য আমার টাকায় কেনা। বিভিন্ন কারণে অফিসটি ছেড়ে দেয়ার পর শরীফ নিজেই এসব আমার বাড়িতে দিয়ে আসে। সে অফিসটি চালানোর দায়িত্বে থাকায় তিন হাজার টাকাও নিতো প্রতিমাসে। এখন আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা মর্মাহত।