৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ. ১৭ই এপ্রিল, ২০২১ ইং

‘প্রিয় নাওঘাট অনলাইন গ্রুপের উদ্যোগে সেরা ফটোগ্রাফারদের পুরস্কার ও সম্মাননা প্রদান।

আশুগঞ্জ প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আশুগঞ্জের সদর ইউনিয়নের নাওঘাট গ্রামকে বলা হয়ে থাকে শিক্ষা ও সাহিত্যের উর্বর ভূমি। যে গ্রামে জন্ম গ্রহন করেছেন বাংলা সাহিত্যের অন্যতম দিকপাল কবি মাহফুজউল্লাহ, ব্যারিস্টার মোজাম্মেল হক ভূঁইয়া, কাজী আব্দুল বায়েস সহ অগণিত গুণী মানুষেরা।

তাদের আদর্শে অনুপ্রাণিত প্রযুক্তি নির্ভর নতুন প্রজন্মের সাহিত্য চর্চা,প্রতিভার অন্বেষণ ও বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম নিয়ে কাজ শুরু করে প্রিয় নাওঘাট অনলাইন গ্রুপ।

যার ধারাবাহিকতায় স্বাধীনতার সুবর্ণ জন্মজয়ন্তীকে সামনে রেখে গ্রুপের মাধ্যমে আয়োজন করা হয় একটি ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতার। গত ১৫ জানুয়ারি শুরু হওয়া প্রতিযোগিতাটি শেষ হয় ৩১ শে জানুয়ারি। অংশগ্রহণকারীদের শত শত ফটো ক্লিকের মধ্য থেকে সেরা ১৭ জন প্রতিভাবান ফটোগ্রাফারকে বিজয়ী ঘোষণা করে শুক্রবার সকালে নাওঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে তাদেরকে পুরষ্কার ও সম্মাননা প্রদান করা হয়।

পুরষ্কার ও সম্মাননা অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন নাওঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি কবির মিয়া, প্রধান শিক্ষক রাশেদুল হক ভূঁইয়া, ৯ নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার সানাউল্লাহ মিয়া, হক মিয়া, বাছির গ্রামের প্রমুখ ব্যক্তিসহ গ্রুপের মোডারেটগণ।

প্রতিযোগিতায় যারা বিজয়ী হয়েছেন তারা হলেন- ফয়সাল আহমেদ, আরাফাত আল জুবায়ের, রমজান, ইমন আহমেদ, সাদির খান, ইউসুফ, মিঠুন চৌধুরী, এম এম শিমু, রুমন ভূঁইয়া, জুম্মন আলী, সুজন মাধুর, ইসমত আরা,তাসনীন জাহান ঊষা,নাসরিন জাহান ঊর্মি, রাফি, নাঈম,জান্নাতুল ফেরদৌস।

গ্রুপের মোডারেটর মোঃ শামীম মিয়া জানান, আমরা গ্রামের সর্ব শ্রেণির মুরব্বী ও বিভিন্ন মহলের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে ফেসবুকের এই গ্রুপটি নিয়ে কাজ করছি। বৃক্ষরোপণ, লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা, শীত কালীন বস্ত্র বিতরণ, যুব উন্নয়নে ফাউন্ডেশন গঠন, গল্প ও কবিতা লিখার মতো সাহিত্যচর্চার বিষয়ে গ্রামের তরুণ তরুণীরা খুবই প্রফুল্ল।সামাজিক কাজেও তারা যুক্ত হচ্ছে যা নাওঘাট গ্রামে এই প্রজন্মের জন্য একটি নতুন দিগন্ত।তারপর তিনি এডমিন মোডারেটরসহ অনলাইন -অফলাইনে গ্রামের সকলকে সম্পৃক্ত থেকে তরুণদের নিয়ে ভবিষ্যতে সামাজিক ও চাহিদা নির্ভর অনলাইনভিত্তিক কাজ করার জন্য আহবান জানান।

এছাড়া গ্রুপের এডমিন কাজী গোলাম সরোয়ার শামীম, সাদ্দাম হোসেন ও কাজী আশিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী,বিজয়ী-বিজেতা,মোডারেটরসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।