৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই ব্যক্তি খুন ॥ স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে মোঃ ছাদির মিয়া-(৪০) এবং মোঃ কবির হোসেন ওরফে ছোটন মিয়া-(৫৫) নামে দুই ব্যক্তিকে খুন করা হয়েছে।  শুক্রবার সকাল ১০টায় জেলার আশুগঞ্জ উপজেলার তালশহর ইউনিয়নের মৈশার গ্রাম এবং কসবা উপজেলার বায়েক ইউনিয়নের চারুয়া গ্রামে পৃথক এই খুনের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে। নিহত ছাদির মিয়া মৈশার গ্রামের সিদ্দিক মিয়ার ছেলে এবং নিহত কবির মিয়া চারুয়া গ্রামের মরহুম সাহেদ আলীর ছেলে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, শুক্রবার সকালে মৈশার গ্রামের সাদির মিয়ার জমির আইলে আন্তা (মাছ ধরার ফাঁদ) পাতে তার ভাস্তে (ভাতিজা) ইয়াছিন মিয়া। বিষয়টি জানতে পেরে সাদির মিয়া জমির আইল থেকে মাছ ধরার ফাঁদ গুলো উঠিয়ে ফেলে। এ ঘটনার জের ধরে সকাল ১০টায় ভাতিজা ইয়াছিন দলবল নিয়ে চাচা ছাদির মিয়াকে কুপিয়ে আহত করে। আশংকাজনক অবস্থায় ছাদির মিয়াকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

অপর দিকে পাওনা টাকা চাওয়ার জের ধরে কসবায় কবির হোসেন ওরফে ছোটন নামে এক ডেকোরেটার্স ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কসবা উপজেলার বায়েক ইউনিয়নের চারুয়া গ্রামের ডেকোরেটার্স মালিক কবির হোসেনের কাছ থেকে গত ৯ মাস আগে ৪৩ হাজার টাকা হাওলাত নেয় একই এলাকার রিকসাচালক সেলিম মিয়া।
দীর্ঘদিন ধরে সেলিম মিয়া টাকা ফেরত দেয়া নিয়ে টালবাহানা শুরু করে আসছিলো। পরে ১০ হাজার টাকা ফেরত দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় সেলিম। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী শুক্রবার সকালে কবির হোসেন পাওনা টাকা আনতে সেলিম মিয়ার বাড়িতে গেলে সেলিম মিয়া ও তার স্ত্রী পারভীন আক্তার টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করে। এনিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সেলিম মিয়া ও তার স্ত্রী পারভীন আক্তার কবির হোসেনকে বেদম মারধোর করে।

মারধোরের এক পর্যায়ে কবির হোসেন অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কবির হোসেনকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ঘটনায় নিহতের কন্যা লাভলী আক্তার বাদী হয়ে সেলিম মিয়া ও তার স্ত্রী পারভীন আক্তারকে আসামী করে কসবা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ সেলিম মিয়া ও তার স্ত্রী পারভীন আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে।

এ ব্যাপারে কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ লোকমান হোসেন বলেন, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় সেলিম ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অপর দিকে আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদ মাহমুদ বলেন, ছাদির মিয়াকে হত্যার ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।