২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ৯ই আগস্ট, ২০২০ ইং

নিখোঁজের দুই দিন পর মেঘনা নদী থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোটার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে নিখোঁজের দুইদিন পর মেঘনা নদী থেকে মোঃ কবির হোসেন-(১৫) নামে এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার দুপুরে উপজেলার লালপুর এলাকায় মেঘনা নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

মৃত কবির হোসেন সদর উপজেলার সুহিলপুর গ্রামের আবু সালেকের ছেলে। আবু সালেক পরিবার পরিজন নিয়ে আশুগঞ্জের পোড়াগুদাম এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। মৃত কবির হোসেন রাজমিস্ত্রীর সহকারি হিসেবে কাজ করতো।

পারিবারিক সূত্র জানায়, গত শুক্রবার সকালে কবির হোসেন পোড়াগুদাম এলাকায় বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পানি নিষ্কাসন চ্যানেলে (আউটার চ্যানেল) ক্রিকেট বল আনতে গিয়ে তীব্র ¯্রােতে ভেসে গিয়ে মেঘনা নদীতে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের পর থেকে পরিবারের লোকজন নৌকা নিয়ে ঘটনাস্থলসহ নদীর বিভিন্ন স্থানে কবিরের লাশের সন্ধান করে।

রোববার লালপুর এলাকায় মেঘনা নদীতে একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয় জেলেরা পরিবারের লোকজনকে খবর দিলে তারা তার লাশ উদ্ধার করে পোড়াগুদাম এলাকায় নিয়ে আসে।
খবর পেয়ে নৌ-পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌছে নিহতের লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। পরে পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

মৃত কবির হোসেনের বড় ভাই রুহুল আমিন জানান, রোববার দুপুর ১টার দিকে স্থানীয় কয়েকজন জেলে মেঘনা নদীতে লাশ ভাসতে দেখে তাদেরকে খবর দিলে দুপুর ২টার দিকে তারা কবিরের লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে ভৈরব নৌ থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ রাসেল মিয়া জানান, লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে নিহতের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।