১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

দর্শকপ্রিয় আইপি চ্যানেল পথিক টেলিভিশন

স্টাফ রিপোর্টার:

দর্শকপ্রিয় হয়ে উঠেছে আইপি চ্যানেল পথিক টেলিভিশন।সংবাদ,টকশো ও বিনোদনের বিভিন্ন বিষয় সমপ্রচারের মাধ্যমে দেশ ছাড়িয়ে বাংলা ভাষাভাষি প্রবাসীদের কাছেও গ্রহনযোগ্যতা অর্জন করেছে পথিক টিভি সফরতার ৫ম বর্ষে প্রতিনিধি সম্মেলন ও সাংবাদিকতার বুনিয়াদি প্রশিক্ষনে এসব কথা বলেন বক্তারা।

সমাজে অনেক সেবামূলক কাজের উদাহরণ প্রচলন আছে। নানান রকম সেবামূলক কাজ করে সমাজে সমাজসেবক হিসেবে পরিচিত লাভ করা যায়। এ সেবামূলক কাজটি বিভিন্ন রকম হতে পারে। সেবামূলক কাজ গুলোর মধ্যে সাংবাদিকতা অন্যতম। কেউ অর্থসম্পদ দানখয়রাত করার মাধ্যমে সমাজসেবক হিসেবে পরিচিত লাভ করে, আবার কেউ শরীরে রক্ত পানি করে। তেমনি একজন সাংবাদিক তার জীবনবাজি রেখে রাতদিন পরিশ্রম করে সমাজে ঘটে যাওয়া সকল ঘটনা গুলো দেশ ও জাতির সামনে তুলে ধরে। বিত্তবান সমাজসেবকগন যখন এসির বাতাস ও আরামের বিছানায় শুয়ে আরাম করে, সাংবাদিক তখনো রোদবৃষ্টি ঝরে সংবাদ সংগ্রহের কাজে খালবিল নদী নালায় পড়ে থাকে। এই মহামারী তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

আইপি চ্যানেল পথিকটিভির উদ্যোগে সাংবাদিকতার বুনিয়াদি প্রশিক্ষন শীর্ষক পথিকটিভির প্রতিনিধিদের নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মসজিদ রোডস্থ ভূইয়া ম্যানশনের চতুর্থ তলায় অবস্থিত গ্রেন্ড এ মালেক কনভেনশন হলে প্রতিনিধি সম্মেলনের আয়োজন করে। সম্মেলনটি অদ্য ১৫ জুন সোমবার সকাল ১০ ঘটিকা থেকে বিকাল ০৩ ঘটিকা পর্যন্ত চলে। সম্মেলনে পথিকটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাংবাদিক মুহাম্মদ লিটন হোসাইন জিহাদের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন পথিকটিভির চেয়ারম্যান প্রভাষক রাবেয়া জাহান তিন্নি।

পথিকটিভির সাংবাদিকদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষন শীর্ষক সম্মেলনে প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, বিটিভির জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক মুহাম্মদ আরজু, সিনিয়র সহ-সভাপতি সাংবাদিক আল আমিন শাহীন, চ্যানেল ২৪ স্টাফ রির্পোটার সাংবাদিক রিয়াজউদ্দিন জামি, জিটিভির জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক মুহাম্মদ জহির রায়হান, যমুনা টিভির জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম। সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা এড. মেসবাহ উদ্দিন ইকো, এ মালেক গ্রুপ এর চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক, মাসিক তিতাস বার্তার সম্পাদক এম এ মতিন শানু, ,প্রশিক্ষকগন সহ উপস্থিত অতিথিরা বলেন, অতীতে, আজকের মতো এমন প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা ছিলনা।

নতুন কেউ সাংবাদিকতা করতে এলে তাকে দিনের পর দিন সিনিয়র কোন এক সাংবাদিকের সাথে সময় দিতে হয়েছে। তার পরেও এমন স্বীকৃতি ছিল না। ছিলনা কোন সার্টিফিকেট। আর আজ ইন্টারনেটের ফলে যোগাযোগ মাধ্যম এত সহজ হয়েছে যে ঘরে বসে সকল কিছুর খবরাখবর পাওয়া যায়। তাই এই ইন্টারনেট কে উপযুক্ত ব্যবহার করতে এমন বুনিয়াদি প্রশিক্ষনের বিকল্প নেই।সাংবাদিকদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষন শীর্ষক সম্মেলন শেষে উপস্থিত উদীয়মান সাংবাদিকদের কে পথিকটিভির পক্ষ থেকে তাদের স্বীকৃতিস্বরূপ সার্টিফিকেট ও আইডি কার্ড প্রদান করা হয়।

সাংবাদিকদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষনে উপস্থিত উদীয়মান সাংবাদিকদের কাছে এ প্রশিক্ষন সম্পর্কে জানতে চাইলে তারা বলেন, প্রতিটি কাজই সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে হলে প্রশিক্ষণের প্রয়োজন আছে। আর সাংবাদিকতাতো একটি মহৎ ও সেনসেটিভ পেশা, যা পালনে প্রশিক্ষণ বিহীন সফল হওয়া সম্ভব নয়। তারা পথিকটিভির এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বললেন বাংলাদেশে দর্শকপ্রিয় আইপি চ্যানেল পথিক টেলিভিশন। এ সময় বক্তারা উদীয়মান সকল সাংবাদিকদের এমন প্রশিক্ষণ গ্রহণের আহবান জানিয়েছেন।