২৫শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ৯ই জুলাই, ২০২০ ইং

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নৃশংসভাবে নারী নির্যাতন, আটক ১

 

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নৃশংসভাবে খোশ নাহার আক্তার নামে এক নারীকে নির্যাতন করেছে ১৬ মামলার আসামী মোস্তাক আহেমদ ফয়সাল নামে এক ব্যক্তি। শনিবার মধ্যরাতে শহরের কাউতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

খোশ নাহার হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার ধর্মনগর ইউনিয়নের শিয়ালহুড়ী গ্রামের মৃত সোনাব আলীর মেয়ে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ফয়সালকে আটক করেছে পুলিশ। ঘন্টাব্যাপী নির্যাতনে তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় লোহা গরম করে ছেকা দিয়ে জ্বলসে দিয়েছে। এক পর্যায়ে তার মাথার চুলও কেটে ফেলা হয়।

নির্যাতনের শিকার খোশ নাহার জানান, প্রতিবেশী হিসেবে ফয়সালের সাথে তার পরিচয়। দুপুরে ফয়সাল তার মোবাইল থেকে ফোন করে আমাকে আসতে বলে। তারপর আমি আশুগঞ্জ উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে অবস্থিত হোটেল ওজান ভাটির সামনে অবস্থান করি। সে এসে আমাকে গাড়িতে তুলে তার ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। তারপর আমার হাত-পা বেঁধে দেয়। আমার কাছে টাকা দাবি করে।

আমি দিতে অনীহা প্রকাশ করলেও আমার উপর চলে পাশবিক নির্যাতন। তার সঙ্গে কয়েকজন মিলে মারধর করতে শুরু করে। পরে আমার হাত, পা ও গলায় লোহা দিয়ে গরম ছেকা দিতে শুরু করে। কয়েকজন চেপে ধরে আমার মাথার চুলও কেটে দেয়।

জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ নির্যাতিতা নারীকে উদ্ধার করে এবং ফয়সালকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ, বিজয়নগর থানায় হত্যা, চুরি, ডাকাতি, ছিতাই, অস্ত্রসহ ১৬ টি মামলা রয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।