২২শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ৬ই আগস্ট, ২০২০ ইং

সাংবাদিককে হত্যার হুমকীর প্রতিবাদে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সাংবাদিকদের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংবাদিক জাবেদ রহিম বিজনকে হত্যার হুমকীর ঘটনায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের জেলার সরাইল বিশ্বরোডে সরাইল, আশুগঞ্জ ও নাসিরনগর প্রেসক্লাবের যৌথ উদ্যোগে মানববন্ধন হয়েছে। এই তিন প্রেসক্লাবের সদস্যরা ছাড়াও নানা শ্রেনী পেশার মানুষ এই মানববন্ধনে যোগ দেন।

সরাইল প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো: আইয়ুব খানের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেলিভিশন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন জামি, সরাইল প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মো: মাহবুব খান বাবুল, আশুগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আল মামুন, নাসিরনগর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মো: আকতার হোসেন, নাসিরনগর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আজিজুর রহমান চৌধুরী ও সরাইল প্রেসক্লাবের জীবন সদস্য ফয়সাল আহমেদ মৃধা দুলাল প্রমুখ।

এতে বক্তারা বলেন, বর্তমান শুদ্ধি অভিযানে দলীয় লোকজন এমনকি প্রধানমন্ত্রীর স্বজনরাও ছাড় পাচ্ছেনা। সেখানে চিহ্নিত দূর্নীতিবাজ, নানা অপকর্মের হোতা আখাউড়া যুবলীগ নেতা ও পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলের এই আস্ফালন সাংবাদিক সমাজকে বিস্মিত করেছে। সরকার যেখানে সংবাদপত্র এবং সাংবাদিকদের স্বাধীনতার কথা বলছে, সেখানে যুবলীগ নেতা কাজল সাংবাদিকদের হত্যার হুমকী দিচ্ছেন, পত্রিকা পুড়াচ্ছেন। তার খুঁটির জোর কোথায় সেটি আজকে সাংবাদিক সমাজ জানতে চায়। বক্তারা দ্রুত হুমকীর সঙ্গে জড়িত যুবলীগ নেতা কাজল ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের গ্রেফতার করার দাবী জানিয়ে বলেন অন্যথায় সাংবাদিক সমাজ কঠোর কর্মসূচী দেবে।

উল্লেখ্য, গত ২৫ অক্টোবর দৈনিক মানবজমিনে আখাউড়ায় খলিফা সা¤্রাজ্য শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপরই সাংবাদিক বিজনকে হত্যার হুমকী দেয়া হয়।