৩রা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

দাঙ্গামুক্ত সরাইল গড়ার অঙ্গীকার

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দাঙ্গামুক্ত সরাইল গড়ার অঙ্গীকার করেছেন হাজারো জনতা। রবিবার সকালে স্থানীয় অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত কমিউনিটি পুলিশিং এর সভায় উপস্থিত হাজারো জনতা উপরে হাত তুলে দাঙ্গামুক্ত সরাইল গড়ার অঙ্গীকার করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম শিউলী আজাদ।

সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহাদাৎ হোসেন টিটোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান।

বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর হোসেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মোঃ মগবুল হোসেন, সরাইল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাপতি মৃধা আহমাদুল কামাল, সদস্য সচিব ও ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীন ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম খোকন, মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া ও সমাজকর্মী মোঃ রওশন আলী প্রমুখ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম (শিউলী আজাদ) এমপি বলেন, কেবলমাত্র সু-শিক্ষাই পারে দেশকে বিশ্বের দরবারে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করতে। তিনি বলেন, কোন ধর্ম হত্যা ও দাঙ্গা- হাঙ্গামাকে সমর্থন করে না। তিনি বলেন, আমরা সকলে মিলে চেষ্টা করলে অবশ্যই সরাইল দাঙ্গামুক্ত হবে। তখন উপস্থিত হাজারো জনতা হাত তুলে আর দাঙ্গা না করার অঙ্গিকার করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান বলেন, ইতিহাস ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির ধারক বাহক সরাইল উপজেলা দাঙ্গাপ্রবন থাকতে পারেনা। দাঙ্গা চলতে থাকলে সমাজে পঁচন ধরবে। এই জনপদের ইতিহাস থেকে দাঙ্গা মুছে ফেলতে হবে। তিনি বলেন, দাঙ্গা প্রতিরোধে পুলিশের সাথে সকলকে দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে। কমিউনিটি পুলিশিং এর মাধ্যমে যে কোন সমস্যার সমাধান করতে হবে। নতুবা সমাজে অশান্তি ও উশৃঙ্খলতা বৃদ্ধি পাবে।

তিনি বলেন, জঙ্গীবাদ, মাদক, সন্ত্রাস ও দাঙ্গা দমনে কমিউনিটিকে ভূমিকা রাখতে হবে। তিনি বলেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য সুন্দর সমাজ গঠন প্রয়োজন। গোষ্ঠী নয়, গ্রামে বসবাসকারী সকল ধর্ম, বর্ণ ও গোত্রের লোকজনই একে অপরের ভাই। আমাদেরকে মিলে মিশে কাজ করতে হবে। আমাদের মনের পরিবর্তন না হলে ৫০ জন নয়, ৫০ হাজার পুলিশ দিয়েও কাজ হবে না।

তিনি বলেন, একজনের জন্য সমাজ ধ্বংস হতে পারে না। সরকারি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা দাঙ্গাবাজ ও ইন্ধনদাতাদের তালিকা করছে। কেউ পার পাবেন না। দাঙ্গামুক্ত সরাইল গড়তে ইউনিয়ন, ওয়ার্ড পর্যায়ে প্রত্যেকটি কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি নতুন ভাবে গঠন করতে হবে। গ্রাম্য আদালতকে শক্তিশালী করতে হবে।