১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ. ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

মেড্ডায় জায়গা দখল করতে পেট্রোল পাম্পে হামলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের পূর্ব মেড্ডা এলাকায় একটি পেট্রোল পাম্পের জায়গা জোরপূর্বক দখল করতে স্থানীয় একটি চক্র হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার সকালে মেড্ডা বাসষ্ট্যান্ড এলাকার এস. রহমান পেট্রোল পাম্পে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় হামলকারিরা পাম্পের সামনের অংশে থাকা একটি টং দোকানঘর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়।

এস. রহমান পেট্রোল পাম্পের সত্বাধিকারি মাহবুবুর রহমান বুলেট অভিযোগ করে বলেন, শনিবার সকালে স্থানীয় মেড্ডা এলাকার বাসিন্দা জেলা বাস মালিক সমিতির সভাপতি জমশেদ মিয়া, একই এলাকার আরেক বাসিন্দা সিএনজি-অটোরিকশা মালিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক রুস্তম আলী ও শহরতলীর বিরাসার এলাকার লাল মিয়ার নেতেৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত এসে পাম্পের সামনের অংশের টং দোকানঘরটি ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয় এবং বাগান তছনছ করে।

এসময় পাম্পে অবস্থান করা তার ভাতিজা আশিকুর রহমান তাদের কাছে হামলার কারণ জানতে চাইলে হামলকারিরা জায়গাটি ক্রয় করেছেন বলে দাবি করেন। সরকারি জায়গা কিভাবে ক্রয় করেছেন এমনটি জানতে চাইলে তাদের সঙ্গে আশিকুরের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এরই মধ্যে আশিকুর তার হাতে থাকা মুঠোফোনের ক্যামেরায় ঘটনার ভিডিও ধারণ করায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আশিকুরের স্যামসাং অ্যান্ড্রয়েড ফোন সেটটি ভেঙ্গে ফেলে।

মাহবুবুর রহমান বুলেট আরো জানান, ১৯৬১ সালে এই পাম্পটি নির্মাণ করা হয়। সে সময় পদ্মা অয়েল কোম্পানির ডিলার হিসেবে পাম্পের সামনের ২৩ শতক সরকারি জায়গা ৯৯ বছরের জন্য লিজ নেওয়া হয়। লিজ নেওয়ার পর নির্দেশনা অনুসারে সেখানে কোন স্থাপনা নির্মাণ না করে জায়গাটি উন্মুক্ত রাখা হয়। লিজ নেওয়া এই জায়গার জন্য প্রতি পাঁচ বছর পরপর সরকারি কোষাগারে টাকা জমা দেন তারা।

হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আতিকুর রহমান জানান, এ বিষয়ে এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।