,

নাসিরনগরের সততা স্টোরের জন্য অর্থ বিতরণ

এনবি প্রতিনিধি ॥ নাসিরনগরে ২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সততা স্টোর স্থাপনের জন্য দুদকের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে। এর আগে উপজেলার ৪টি বিদ্যালয়ে সততা স্টোর চালু করা হয়েছে। দূর্নীতি প্রতিরোধে তরুণ প্রজম্মের মাঝে সততা ও নিষ্ঠাবোধ সৃষ্টি এবং গণসচেতনা গড়ে তোলার লক্ষে দূর্নীতি দমন কমিশন এ উদ্যোগ নিয়েছে।

আজ বুধবার উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার কার্যালয়ে জেলা দূর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের আয়োজনে নাসিরনগর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের প্রতিনিধি একেএম আমিনুল ইসলাম ও ফান্দাউক পন্ডিতরাম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ হাবিবুর রহমান শেখের হাতে ৩০ হাজার করে টাকা তুলে দেন নাসিরনগর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল কবির।

এসময় কুমিল্লা জেলা দূর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আহমদ ফরহাদ হোসেন,সহকারী পরিদর্শক অমূল্য চন্দ্র দেবনাথ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাকছুদুর রহমান,উপজেলা রিসোর্স কর্মকর্তা শাহজাহান ভুইয়া,উপজেলা নিবার্চন কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ,জেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মোহাম্মদ আরজু মিয়া,উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি প্রধান শিক্ষক মোঃ আবদুর রহিম,সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন ভুঁইয়া উপস্থিত ছিলেন।

দুদক সূত্রে জানা যায়,বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে সততা স্টোরের চারপাশে তাকে সাজানো থাকবে কলম,পেনসিল,খাতা,জ্যামিতি বক্স,রাবার,বিস্কুট,চানাচুর,চকলেটসহ বিভিন্ন রকমের শিক্ষা সামগ্রী। সেখানে থাকবে না কোন দোকানি,থাকবে না বিক্রয়কর্মী,থাকবে না কোন নজরদারি ক্যামেরা। জিনিসপত্রের গায়ে দাম লেখা থাকবে। সেই দাম অনুযায়ি খাতা,কলম বা অন্য কোন শিক্ষা সামগ্রী নিয়ে নির্ধারিত বাক্সে রাখতে হবে টাকা। এভাবে কোন দরদাম ছাড়াই শিক্ষার্থীরা কেনাকাটা করতে পারবে সততা স্টোর থেকে।